||   ফেব্রুয়ারি থেকে ফের ১০ টাকা কেজির চাল      ||   ভাঙ্গায় নকল ধরার কারনে শিক্ষক কে পিটিয়ে আহত      ||   বিজয় দিবসে চার শো নিয়ে দিনাত জাহান মুন্নী      ||   সিলেটে ছিনতাই চক্রের তিন সদস্য আটক      ||   জিতে ঘুরে দাঁড়াতে চায় জাতীয় পার্টি      ||   মুকসুদপুরে ৪১২ পিচ ইয়াবাসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার      ||   রাণীনগরে গভীর নলকূপের মিটার চুরির হিরিক ॥ মুক্তিপণে মিটার ফিরে পাচ্ছে গ্রাহকরা!      ||   ১৯ ডিসেম্বর ঢাকায় আসছে মিয়ানমারের ওয়ার্কিং গ্রুপ      ||   এক ছবিতে পরী-মাহি      ||   ট্রাকচাপায় স্কুলছাত্র নিহত      ||   নিউ ইয়র্কে বোমা হামলা : অভিবাসন আইন কঠোর চান ট্রাম্প      ||   প্রাইভেটকারের ধাক্কায় পথচারী নিহত      ||   আবারও ট্রফি হাতে শেষ হাসি মাশরাফির?      ||   দাকোপের দুই জেলে সুন্দরবনে গুলিবিদ্ধ      ||   দাকোপে সিবিজি সদস্যদের খাঁচায় মাছ চাষ বিষয়ক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন     

ফেব্রুয়ারি থেকে ফের ১০ টাকা কেজির চাল ভাঙ্গায় নকল ধরার কারনে শিক্ষক কে পিটিয়ে আহত বিজয় দিবসে চার শো নিয়ে দিনাত জাহান মুন্নী সিলেটে ছিনতাই চক্রের তিন সদস্য আটক
জিতে ঘুরে দাঁড়াতে চায় জাতীয় পার্টি
জিবাংলানিউজ ডেস্ক: ১৪/১২/২০১৭- ২১ ডিসেম্বরের অপেক্ষায় দ্রুত চলে যাচ্ছে ভোটের দিনগুলো। প্রচারণায় মুখর রংপুর সিটি কর্পোরেশনের (রসিক) পুরো এলাকায়। পোস্টারে ছেয়ে গেছে গোটা সিটি। এবারের রসিক নির্বাচনে মেয়র পদটি দখলে নিয়ে রংপুর দুর্গ সুরক্ষিত রাখার পাশাপাশি জিতে ঘুরে দাঁড়াতে চায় জাতীয় পার্টি। মনোনয়ন না পাওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করায় নিজের ভাতিজা হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফকে দল থেকে বহিষ্কার করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ। পার্টির স্থানীয় নীতি-নির্ধারকরা বলছেন, পার্টি চেয়ারম্যান এরশাদের এই অনড় অবস্থান দলীয় প্রার্থীর বিজয়ে সহায়ক হবে। জাপার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সব নেতাকর্মী ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে কাজ করছে। সর্বত্র লাঙ্গলের জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় রাজনীতি বিশ্লেষকরা বলেন, সারাদেশের ভোটের রাজনীতিতে জাতীয় পার্টির অবস্থান শূন্যের কোঠায় নেমে গেছে। সংসদ সদস্য ছাড়া স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা, উপজেলা ও জেলা পরিষদে তাদের জনপ্রতিনিধি মাত্র হাতে গোনা কয়েকজন। রংপুর বিভাগের ৫৮টি উপজেলার মধ্যে মাত্র কুড়িগ্রাম জেলার ১টি উপজেলায় জাপার প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছে। এ থেকে উত্তরণ ঘটাতে না পারলে জাপার অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠবে। গতকাল বুধবার জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত একটানা সিটি বাজারে গণসংযোগ করেছেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, মহানগর জাপার সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াছিরসহ পার্টির নেতাকর্মীরা। মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেন, সিটির ৩৩টি ওয়ার্ডে লাঙ্গলের পক্ষে গণরায় আসবে। স্থানীয় সূত্র জানায়, হঠাৎ কমিটি বাতিল, আবার পুনর্বহাল, বহিষ্কার, পরে ফিরিয়ে এনে পার্টির কমিটিতে দায়িত্ব দেয়া ও অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের কারণে জাতীয় পার্টির রংপুর দুর্গ এখন আর অক্ষত নেই। পার্টির নেতাকর্মীরা হতাশ হয়ে রাজনীতি থেকেও দূরে সরে গেছেন। বিশেষ করে ২০১২ সালের রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনকে ঘিরে দলের মধ্যে অসন্তোষ চরম রূপ নেয়। দলের তিনজন মেয়র পদে প্রার্থী হতে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। জাপা চেয়ারম্যান এরশাদের নির্দেশ মেনে বর্তমান পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিলেও বর্তমান জাপার মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা ও সাবেক জাপা নেতা আবদুর রউফ মানিক ওই নির্বাচনে অংশ নিয়ে পরাজিত হন। মেয়র পদে বিজয়ী হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু। সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্রিক জটিলতা সৃষ্টির কারণে মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, আবদুর রউফ মানিক ও এসএম ইয়াসিরকে দল থেকে বহিষ্কার করেন পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ। ফলে ভেঙে পড়ে দলের চেইন অব কমান্ড। এরই ফাঁকে রংপুর জাপা দুর্গের সুরক্ষা হারায়। আবদুর রউফ মানিক ছাড়া সবাইকে পার্টিতে ফিরিয়ে এনে নতুন করে পদায়ন করা হয়। পরবর্তীতে দুজন সংসদ সদস্য ছাড়া স্থানীয় পর্যায়ের সব নির্বাচনে রংপুর থেকে জাপার প্রতিনিধিত্ব প্রায় শূন্যের কোঠায় নেমে আসে। পার্টির একাধিক নেতা জানান, এ অবস্থা কাটাতে পার্টি চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ ঘনঘন রংপুরে এসেছিলেন। তার সফরে পার্টির নেতাকর্মীদের মাঝে উচ্ছ্বাস-উদ্দীপনা বৃদ্ধি পেয়েছে। রংপুর জাপা এখন সম্মিলিত শক্তিতে পরিণত হয়েছে। নতুন পুরনো মিলে রংপুর জাপা যে কোনো বৈতরণী সফলভাবে পার হতে প্রস্তুত। সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদটি দখলে নিতে পারলে পার্টিতে আবার গতি আসবে।মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক এসএম ইয়াছির জানান, ১৯৯০ ও ৯৬ সালের মতো আবার রংপুরের মানুষ লাঙ্গল প্রতীকে জেগে উঠেছে। জাতীয় পার্টির উত্থান আসন্ন। এরশাদ, লাঙ্গল ও মোস্তফা এই তিনের সমন্বয়ে রংপুরবাসী আবার ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। ২১ ডিসেম্বর লাঙ্গলের পক্ষে ভোট বিপ্লব হবে। জাপার সাবেক এমপি সদ্য বহিষ্কৃত হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ অভিযোগ করে বলেন, সুবিধাভোগীরা জাতীয় পার্টিকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে। জাতীয় পার্টির লাগাম এখন এরশাদের হাতে নেই। এবার এ সিটির মেয়র পদে সাতজন প্রার্থী লড়বেন। ২০৩.৬৩ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের ৩৩টি ওয়ার্ডের ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৮৯৪ জন ভোটার গোপন ব্যালটে নিজ নিজ মতামত প্রদান করবেন। ২১ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ করা হবে।

রাজনীতি
জিতে ঘুরে দাঁড়াতে চায় জাতীয় পার্টি

খালেদার দুর্নীতি মামলা : যা বলছেন সাবেক মুখ্য সচিব

মাদক সমস্যা নিরসনে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: তথ্যমন্ত্রী

ভোটে না এলে বিএনপির অবস্থা মুসলিম লীগের মতো হবে: কাদের

 
 
All rights reserved. Copyright © 2017 ONLINE GBANGLANEWS || Developed by : JM IT SOLUTION
জি বাংলা নিউজ পোর্টালের কোন সংবাদ,ছবি, কোন তথ্য পূর্বানুমতি ছাড়া কপি বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।