||   দাকোপে এবার পাল্টা হামলায় নয়া চেয়ারম্যান পুত্র হাসপাতালে      ||   প্রথম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণকারি শাকিলের ফাঁসির দাবী গাইবান্ধায় মানববন্ধন সমাবেশ      ||   ধানের মূল্যে বৃদ্ধির দাবিতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ      ||   দাকোপে যুবলীগনেতা চেয়ারম্যান পুত্রের অফিসে নবনির্বাচীত চেয়ারম্যান পুত্রের নেতৃত্বে হামলা: মিছিল সমাবেশ      ||   পলাশবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীর গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা      ||   ফুলছড়িতে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের বিদায় সংবর্ধনা      ||   ফরিদপুরে আন্তর্জাতিক নার্সেস ও মিডওয়াইফ দিবস পালিত      ||   ফরিদপুরে ঘুর্ণিঝড়ের তান্ডবে লন্ডভন্ড গাছপালাসহ ঘরবাড়ী      ||   নড়াইলে ইয়াবাসহ যুবককে গ্রেফতার      ||   ফরিদপুরে জাতীয় আইনগত দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত      ||   গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় ধর্ষকদের বিচার দাবীতে মানববন্ধন      ||   জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সুন্দরবনের ঝুকি বাড়ছে      ||   দেবত্তর সম্পত্তি বেদখল রাণীনগরে দখলদারদের দাপটে দিশেহারা মন্দির কমিটি      ||   গাইবান্ধায় ঘাঘট নদীর উপর গ্রামবাসীর উদ্যোগে তৈরি হচ্ছে কাঠের সাঁকো      ||   দাকোপে নুসরত হত্যাকান্ডের বিচারের দাবীতে পূজা উদ্যাপন পরিষদের মানববন্ধন ও সমাবেশ     



দাকোপে এবার পাল্টা হামলায় নয়া চেয়ারম্যান পুত্র হাসপাতালে প্রথম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণকারি শাকিলের ফাঁসির দাবী গাইবান্ধায় মানববন্ধন সমাবেশ ধানের মূল্যে বৃদ্ধির দাবিতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ দাকোপে যুবলীগনেতা চেয়ারম্যান পুত্রের অফিসে নবনির্বাচীত চেয়ারম্যান পুত্রের নেতৃত্বে হামলা: মিছিল সমাবেশ
হারিয়ে যাচ্ছে নড়াইলের ঐতিহ্যবাহী চাটাই, কুলা, ঝুড়ি ও ডোল!
উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি: গ্রামীণ জনপদে একসময় বাঁশঝাড় ছিল না এমনটা কল্পনাও করা যেতো না। যেখানে গ্রাম সেখানে বাঁশঝাড় এমনটিই ছিল স্বাভাবিক। বাড়ির পাশে বাঁশঝাড় বেত বনের ঐতিহ্য গ্রাম বাংলার চিরায়ত রূপ। জনজীবন থেকে হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী বাঁশ ও বেত শিল্প। এক সময় গ্রামীণ জনপদে বাংলার ঘরে ঘরে তৈরি হতো হাজারো পণ্য সামগ্রী। ঘরের কাছের ঝাড় থেকে তরতাজা বাঁশ কেটে গৃহিণীরা তৈরী করতেন হরেক রকম জিনিস। অনেকে এ দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো। দরিদ্র পরিবারের অনেকের উপার্জনের একমাত্র অবলম্বন ছিলো এগুলো। কিন্তু আজ কটি গ্রামে এ হস্তশিল্পটি উপার্জনের পেশা হিসেবে বেঁচে আছে তা ভাবনার বিষয়। এ শিল্পের সাথে জড়িত অনেকেই বাপ-দাদার আমলের পেশা ত্যাগ করে অন্য পেশায় নিয়োজিত হচ্ছেন। আগে বাঁশ ও বেতের তৈরি জিনিসের কদর ছিল। চেয়ার, টেবিল, বইয়ের সেলফ, মোড়া, কুলা, ঝুড়ি, ডোল, চাটাই থেকে শুরু করে এমনকি ড্রইং রুমের আসবাবপত্র তৈরিতেও বাঁশ ও বেত প্রচুর পরিমাণে ব্যবহার করা হতো। এ ছাড়া মাছ ধরার পলো, হাঁস, মুরগীর খাঁচা, শিশুদের ঘুম পাড়ানোর দোলনা এখনো বিভিন্ন স্থানে ব্যাপকভাবে সমাদৃত। একসময় বিভিন্ন ইউনিয়নের অঞ্চলে বিপুল পরিমাণে এসব বাঁশ ও বেতের সামগ্রী তৈরী হয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে চালান হয়ে যেতো। এখন সচরাচর গ্রামীণ উৎসব বা মেলাতেও বাঁশ ও বেতজাত শিল্পীদের তৈরি উন্নতমানের খোল, চাটাই, খালুই, ধামা, দোয়াড়, আড়ি, টোনা, আড়, হাপটা, মোড়া, বুকসেলফ চোখে পড়ে খুব কম। যেখানে তালপাতার হাত পাখারই কদর নেই, সেখানে অন্যগুলো তো পরের কথা। প্রান্তিক পর্যায়ে বিদ্যুৎ সুবিধা যেমন হাত পাখার চাহিদা কমিয়েছে তেমনি মৎস্য শিকার, চাষাবাদ, ঘরের যাবতীয় আসবাবপত্র সকল ক্ষেত্রেই কমেছে বাঁশ আর বেত জাতীয় হস্তশিল্পের কদর। প্রকৃতপক্ষে বাঁশ বেতের স্থান অনেকটাই প্লাস্টিক সামগ্রী দখল করে নিয়েছে। তাছাড়া এখন বাঁশ ও বেতের উৎপাদন কমে যাওয়ায় এর দামও বেড়ে গেছে। ফলে বাঁশ ও বেতের সামগ্রীর ব্যয়ও বেশি হচ্ছে। সৌখিন মানুষ ঘরে বাঙালির ঐতিহ্য প্রদর্শনের জন্য বাঁশ বেতের সামগ্রী বেশি দাম দিয়ে কিনলেও মূলত ব্যবহারকারীরা বেশি দাম দিতে চান না। স্বল্প আয়ের মানুষেরা সমিতি থেকে সুদের বিনিময়ে টাকা নিয়ে বাঁশ ও বেতজাত দ্রব্যসামগ্রী তৈরি করে বিক্রি করলেও এতে তাদের খরচ পোষায় না। এর ফলে তারা অন্য পেশায় আকৃষ্ট হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে বাঁশ ও বেতের সামগ্রী যারা তৈরি করছে তাদেরকে সরকার এবং বিভিন্ন এনজিওর সহায়তা করা অত্যন্ত জরুরী। বাংলার ঐতিহ্য বাঁশ ও বেতের সামগ্রীকে টিকিয়ে রাখতে হলে এর পেছনের মানুষগুলোকে আর্থিক সাহায্যের মাধ্যমে তাদের পেশাকে বাঁচাতে হবে। অন্যথায় এসব সুন্দর বাঁশ ও বেতের হস্তশিল্প একদিন বিলুপ্ত হয়ে যাবে। বাঁশ ও বেত শিল্পকে বাঁচাতে আমাদের সবার এগিয়ে আসা উচিত।

ফিচার
হারিয়ে যাচ্ছে নড়াইলের ঐতিহ্যবাহী চাটাই, কুলা, ঝুড়ি ও ডোল!

পত্নীতলায গম চাষে আগ্রহ বাড়ছে কৃষকদের

নড়াইলের চিরায়ত বাঙালি সংস্কৃতির অংশ পরিবেশবান্ধব শিল্পের ঐতিহ্য সংকটে বাঁশ শিল্পীদের ভাগ্যে নেমে এসেছে দুর্দিন

দেশী প্রজাতির মাছের শুঁটকি নড়াইলের চাহিদা মিটিয়ে যাচ্ছে দেশের বাইরে

সরকারের দীর্ঘ সময়েই শিক্ষা উন্নয়নের বাস্তবায়ন ও পরিকল্পনা

গোপালগঞ্জ রেলপথ উদ্বোধনের অপেক্ষায়

গোপালগঞ্জে মনোমুগ্ধকর পদ্মবিলের সৌন্দর্য্য : হাজারো দর্শনার্থীদের ভীড়

গোপালগঞ্জে বিলুপ্তির পথে দেশি প্রজাতির মাছ!

গোপালগঞ্জে ভাসমান সবজি চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষীদের

ফরিদপুরে বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসা পেয়ে আলোরমুখ দেখলো শতাধিক দরিদ্র মানুষ

 
 


All rights reserved. Copyright © 2019 ONLINE GBANGLANEWS || Developed by : JM IT SOLUTION
জি বাংলা নিউজ পোর্টালের কোন সংবাদ,ছবি, কোন তথ্য পূর্বানুমতি ছাড়া কপি বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।