ফেব্রুয়ারি থেকে ফের ১০ টাকা কেজির চাল ভাঙ্গায় নকল ধরার কারনে শিক্ষক কে পিটিয়ে আহত বিজয় দিবসে চার শো নিয়ে দিনাত জাহান মুন্নী সিলেটে ছিনতাই চক্রের তিন সদস্য আটক
||   ফেব্রুয়ারি থেকে ফের ১০ টাকা কেজির চাল      ||   ভাঙ্গায় নকল ধরার কারনে শিক্ষক কে পিটিয়ে আহত      ||   বিজয় দিবসে চার শো নিয়ে দিনাত জাহান মুন্নী      ||   সিলেটে ছিনতাই চক্রের তিন সদস্য আটক      ||   জিতে ঘুরে দাঁড়াতে চায় জাতীয় পার্টি      ||   মুকসুদপুরে ৪১২ পিচ ইয়াবাসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার      ||   রাণীনগরে গভীর নলকূপের মিটার চুরির হিরিক ॥ মুক্তিপণে মিটার ফিরে পাচ্ছে গ্রাহকরা!      ||   ১৯ ডিসেম্বর ঢাকায় আসছে মিয়ানমারের ওয়ার্কিং গ্রুপ      ||   এক ছবিতে পরী-মাহি      ||   ট্রাকচাপায় স্কুলছাত্র নিহত      ||   নিউ ইয়র্কে বোমা হামলা : অভিবাসন আইন কঠোর চান ট্রাম্প      ||   প্রাইভেটকারের ধাক্কায় পথচারী নিহত      ||   আবারও ট্রফি হাতে শেষ হাসি মাশরাফির?      ||   দাকোপের দুই জেলে সুন্দরবনে গুলিবিদ্ধ      ||   দাকোপে সিবিজি সদস্যদের খাঁচায় মাছ চাষ বিষয়ক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন       
মোমিন হত্যা মামলার আসামীদের সাজা আপিলেও বহাল
জিবাংলানিউজ ডেস্ক: ৭/১২/২০১৭- কলেজ ছাত্র মোমিন হত্যা মামলায় আসামীদেরকে বিচারিক আদালতের দেয়া সাজা বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে মৃত্যুদণ্ড নিশ্চিতকরণ ও আসামীদের আপিলের শুনানী করে বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ রায় দেন। মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত ১নং আসামী কাফরুল থানার ওসি রফিক কারাগারে মারা যাওয়ায় তাকে এ মামলার সাজা অকার‌্যকর পরিসমাপত্তি ঘোষণা করা হয়েছে। রফিক বাদে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- সাখাওয়াত হোসেন জুয়েল ও তারেক ওরফে জিয়া। আর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- হাবিবুর রহমান তাজ, জাফর আহমেদ, মনির হাওলাদার, ঠোঁট উঁচা বাবু, হাসিফুল হক জনি ও শরিফ উদ্দিন। এর আগে বুধবার বৃহস্পতিবার এ মামলায় হাইকোর্টের শুনানি শেষ করা হয়। পরে রায় ঘোষণার জন্য আজকের দিন নির্ধারণ করে আদালত। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল বশির আহমেদ। কাফরুল থানার প্রয়াত ওসি একেএম রফিকুল ইসলাম এ মামলার প্রধান আসামি ছিলেন। সে সময় মামলাটি খুবই চাঞ্চলকর ছিলো। তিনি কারাবন্দি অবস্থায় ২০১৫ সালের ২২ ডিসেম্বর মারা যান।মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, ২০০৫ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর খুন হন কলেজছাত্র মোমিন। এ ঘটনায় ওই দিন নিহতের বাবা আবদুর রাজ্জাক বাদী হয়ে ওসি রফিকসহ ২৬ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তবে, এ মামলায় রফিককে আসামির তালিকা থেকে বাদ দিয়ে ২০০৭ সালে চার্জশীট দেয় সিআইডি। সিআইডির চার্জশীটের বিরুদ্ধে নারাজি পিটিশন করেন বাদী। এর প্রেক্ষিতে ডিবিকে তদন্তের দায়িত্ব দেন আদালত। ডিবিও তদন্ত শেষে ওসি রফিককে বাদ দিয়ে ২০০৮ সালের ২ মার্চ অভিযোগপত্র দেয়। এরপর বিচার বিভাগীয় তদন্ত হয়। ২০০৮ সালের ৩০ অক্টোবর দেওয়া এ তদন্তের রিপোর্টের ভিত্তিতে ওসি রফিকসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। ওই বছরের ১১ নভেম্বর এ অভিযোগপত্র গৃহীত হয়। এরপর ঢাকার দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এ ২০০৯ সালের ৫ অক্টোবর অভিযোগ গঠন করা হয়। পরবর্তীতে মামলাটি দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ এ স্থানান্তর করা হয়। এ আদালতে ওসি রফিকের বিরুদ্ধে নতুন করে অভিযোগ গঠন করা হয় ২০১১ সালের ২ জানুয়ারি। এ আদালতেই বিচার শেষে ২০১১ সালের ২০ জুলাই রায় দেওয়া হয়। রায়ে ওসি রফিকসহ তিনজনকে ফাসির সাজা দেয়া হয়। একইসাথে পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী হাবিবুর রহমান তাজসহ ছয়জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন আদালত। নিয়ম অনুযায়ী নিম্ন আদালত থেকে ফাঁসি অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স পাঠানো হয় হাইকোর্টে। পাশাপাশি মামলা আসামীরাও সাজা থেকে খালাস চেয়ে হাইকোর্টে আপিল করেন। আপিল ও ডেথ রেফারেন্সের ওপর ১২ নভেম্বর হাইকোর্টে শুনানি শুরু হয়।

অপরাধ জগত
ভাঙ্গায় নকল ধরার কারনে শিক্ষক কে পিটিয়ে আহত

সিলেটে ছিনতাই চক্রের তিন সদস্য আটক

মুকসুদপুরে ৪১২ পিচ ইয়াবাসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

রাণীনগরে গভীর নলকূপের মিটার চুরির হিরিক ॥ মুক্তিপণে মিটার ফিরে পাচ্ছে গ্রাহকরা!

দাকোপের দুই জেলে সুন্দরবনে গুলিবিদ্ধ

অধ্যক্ষ কলেজ তহবিল থেকে ২লাখ ২৫ হাজার টাকা ঘুষ দিলেন

মহেশখালীতে যুবককে গুলি করে হত্যা

স্বর্ণের ২৬ বারসহ আটক- ২

উপজেলা চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার ১৪

মোমিন হত্যা মামলার আসামীদের সাজা আপিলেও বহাল

 
 
All rights reserved. Copyright © 2017 ONLINE GBANGLANEWS || Developed by : JM IT SOLUTION
জি বাংলা নিউজ পোর্টালের কোন সংবাদ,ছবি, কোন তথ্য পূর্বানুমতি ছাড়া কপি বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।